পশ্চিমবঙ্গ

বর্ধমানে মুখ্যমন্ত্রীর সভা ঘিরে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা, শতাধিক প্রকল্পের শিলান্যাস ও উদ্ভোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী

FOCUS BENGAL

FOCUS BENGAL

ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: বৃহস্পতিবার অর্থাৎ আজ বর্ধমানের গোদা বালির মাঠে সভা করতে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। আর তার আগে কার্যত গোটা শহরকেই নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে। একদিকে যেমন শহরের ভিতর দিয়ে যাওয়া জিটি রোডে সকাল থেকেই বিভিন্ন যানবাহন এর যাতায়াত নিয়ন্ত্রণে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে, পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রীর সভাস্থল লাগোয়া এলাকা কে একশো চল্লিশ টি সিসি ক্যামেরা দিয়ে ঘিরে ফেলা হয়েছে। জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করতেই রাজ্যের নির্দেশে বেশ কিছু নির্দেশিকা, নিয়ন্ত্রণ সহ প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই এদিন যে সাধারণ মানুষ কিছুটা হলেও সমস্যায় পড়বেন সেই বিষয়ে শহরবাসী অনেকেই আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

বিজ্ঞাপন

আজ বেলা একটা নাগাদ শুরু হবে মুখ্যমন্ত্রীর সভা। তার আগে থেকেই শহরের যান চলাচলে ব্যপক নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। মূলত টোটো ও টাউন সার্ভিস বাসের যাতায়াত বেশ কয়েকঘন্টা বন্ধ থাকবে স্টেশন থেকে নবাবহাট পর্যন্ত। এই অংশের জিটি রোডে কোন বড় গাড়ি ঢুকতে দেওয়া হবে না। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রীর সভায় যানজটের সমস্যা এড়াতেই এই সিদ্ধান্ত। যদিও শহরের বিভিন্ন এলাকায় ছোট গাড়ি, বাইক পার্কিয়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। দুটি জেলার সমস্ত ব্লকের উপভোক্তাদের নিয়ে আসার জন্য সরকারিভাবে যে বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে, সেই বাস গুলিকে কোথায় রাখা হবে সে বিষয়েও সিধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

সভায় লক্ষাধিক জনসমাগম হতে পারে। সেভাবেই তৈরী করা হয়েছে সভাস্থল। দুটি আলাদা মঞ্চ করা হয়েছে মুল মঞ্চ ছাড়া। দুই জেলার বিভিন্ন ব্লকের বিডিওদের সঙ্গে কথা বলে জানা গিয়েছে সরকারিভাবে তাঁদেরও বলা হয়েছে, ব্লক থেকে বাসের ব্যবস্থা করে যেন মুখ্যমন্ত্রীর সভায় উপভোক্তাদের নিয়ে আসার ব্যবস্থা করা হয়। বুধবার সকালে সভাস্থল ঘুরে দেখেন রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী প্রদীপ মজুমদার।
এদিনের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী ৪০টি প্রকল্পের উদ্ভোধন ও ১০৭টি প্রকল্পের শিলান্যাস করবেন বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে। জানা গেছে যে সমস্ত প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী তার জন্য মোট অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে ৭২কোটি টাকা। অন্যদিকে ৩৫২ কোটি টাকার ১০৭টি প্রকল্পের শিল্যানাস করবেন মুখ্যমন্ত্রী।

এছাড়াও এদিন মঞ্চ থেকেই নবম বর্ধমান কাঞ্চন উৎসবের শুভ সূচনা করতে পারেন তিনি। পাশাপাশি জেলাশাসকের অফিস এলাকায় তৈরী সুফল বাংলা বিপনীর উদ্বোধন করবেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, ৮৭টি স্বাস্থ্য কেন্দ্রের টেলি-মেডিসিন পরিষেবার উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী। দুর্গাপুরে রিজিওনাল ফরেন্সিক ল্যাবের উদ্বোধন ছাড়াও দুর্গাপুর হাসপাতালে ২৪ শয্যার হাইব্রিড সিসিইউ ও পশ্চিম বর্ধমান জেলার বিভিন্ন ব্লকে ২১টি উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র কে সুস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উন্নতীকরণ। পূর্ব বর্ধমান জেলার বিভিন্ন ব্লকে ছাত্রছাত্রীদের থাকার জন্য ৮টি হোস্টেলের শিল্যানাস করবেন তিনি। এছাড়াও খাদ্যশ্রী, স্বাস্থ্যসাথী, লক্ষ্মী ভান্ডার, কিষাণ ক্রেডিট কার্ড, সবুজসাথীর মতন বিভিন্ন প্রকল্পের পরিষেবা তুলে দেবেন বিভিন্ন উপভোক্তাদের হাতে।

বিজ্ঞাপন

Advertisement